Tips & Trick

ড্রপবক্স কি? ড্রপবক্স এর ব্যবহার শিখুন ও ঝামেলা এড়ান

ড্রপবক্স কি ও ব্যবহার নিয়ে সূচনাঃবাসার পিসিতে কিছু ফাইল আছে আর এই মুহূর্তে আমি রাস্তায়, ক্লায়েন্ট বলছে এখনি তাকে দিতে হবে- এমন পরিস্থিতিতে আমরা অনেকেই পরি। এমন প্রয়োজনীয় সময়ে আমরা কি করতে পারি? বাসায় ফিরে গিয়ে ক্লায়েন্টকে ইমেইল করব নাকি বাসায় কাওকে দিয়ে পিসি অন করে মেইল সেরে নিব? না ভাই, আপনাকে এর কোনটাই করতে হবে না। আপনার যদি  যে কোন ক্লাউড বেজড ভার্চুয়াল ড্রাইভের একাউন্ট থেকে থাকে তাহলে যেখানে আছেন ওখানে বসেই মোবাইল দিয়ে আপনার ক্লায়েন্টকে প্রয়োজনীয় ফাইল ইমেইল করে দিতে পারেন। এধরনের সবচেয়ে জনপ্রিয় সার্ভিস হল ড্রপবক্স।

হ্যা বন্ধুরা, আমি আজকের ব্লগে আপনাদেরকে ড্রপবক্স নিয়ে বলব। যারা জানেন তারা ত জানেনই আর যারা জানেন না তারা প্লিজ চলুন জেনে নেই ড্রপবক্স নিয়ে কিছু তথ্য।

ড্রপবক্স কি?

এক কথায় ড্রপবক্স হল একপ্রকারের ভার্চুয়াল ড্রাইভ যা থাকবে মেইন সার্ভারে আর আপনার পিসিতে একটি ড্রাইভ/ফোল্ডার এর সাথে কিঙ্ক্রোনাইজ করা থাকবে। আপনার যে কোন ফাইল এডিট কিংবা পরিবর্তন করা হলে ড্রপবক্স অটোমেটিক তা নিজে নিজে করে নিবে। আর এই ড্রাইভ/ফোল্ডারটি আপনি একাধারে ল্যাপটপ, মোবাইল কিংবা ট্যাব সবখান থেকে এক্সেস করতে পারবেন।

আরো পড়ুনঃ

সাধারণত ড্রপবক্স প্রতি একাউন্টে ২.৫ জিবি পর্যন্ত স্টোরেজ সুবিধা দিয়ে থাকে, এর বাইরে যদি আপনি পেতে চান তাহলে আপনাকে কিছু বন্ধুকে ইনভাইট করে তাদের একাউন্ট খুলে দিতে হবে। এভাবে ফ্রিতে আপনি ১৬ জিবি পর্যন্ত ফ্রি স্টোরেজ সুবিধা নিতে পারবেন। প্রতি একাউন্টের জন্য আপনি ৫০০ এমবি স্পেস পাবেন।

আর যদি  আরও বেশি স্পেস আপনার প্রয়োজন হয় তাহলে আপনাকে স্পেস কিনে নিতে হবে। সাধারন ইন্ডিভিজুয়াল ব্যবহারে জন্য আসলে এরচেয়ে বেশি জায়গার দরকার হয়না বললেই চলে।

ড্রপবক্সের মত আর কি কি সার্ভিস আছে?

শুধুমাত্র ড্রপবক্সই নয়, এরকম আরও কিছু সার্ভিস প্রোভাইডার রয়েছে। উইন্ডোজের অয়ান ড্রাইভ, গুগলের গুগল ড্রাইভ ইত্যাদি। তবে আমার কাছে ড্রপবক্সের সার্ভিসটাই সবচেয়ে ভাল মনে হয়েছে। আমি দীর্ঘ দিন যাবত এটাই ব্যবহার করি। কেন করি দাড়ান বলছি।

ড্রপবক্সের কিছু সুবিধা

  1. প্রথমত ফোল্ডার শেয়ারিং সিস্টেম আমার খুবই ভাল লাগে। একই ফোল্ডার ইউজার ওয়াইজ এক্সেস ডিফাইন করা যায়।
  2. কারও ড্রপবক্সে একাউন্ট না থাকলেও তাকে লিংক শেয়ার দিতে পারবেন।
  3. লিংক বড় হয়ে গেলে সেই লিং শর্ট করে নিতে পারবেন লিংক শর্টেনার ব্যবহার করে।
  4. কোন বড় ফাইল ইমেইলে এটাচ করে দিতে পারছেন না, তাকে শুধু লিংক পাঠিয়ে দিলেই হবে।
  5. পেপারলেস সাইনিং অপশন আছে।
  6. এন্ড্রোয়েড, আইওএস, ম্যাক ও উইন্ডোজ সফটওয়্যার এভেইলেবল আছে।
  7. ড্রপবক্সের সিকিউরিটি সিস্টেম খুবই ভাল।

তাহলে আর দেরি কেন? আজই ড্রপবক্স এ আপনার একাউন্ট খুলে নিন আর উপভোগ করুন ঝামেলাবিহীন সার্ভিস। ধন্যবাদ এতক্ষণ সাথে থেকে টিউনটি পড়ার সাথে। আমাদের সাথেই থাকুন।

Imran Hossan

Everyone wants Happiness, Nobody wants Pain, But you can't make a Rainbow without a little Rain.

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

Adblock Detected

Hey Dear!! Thank you for visit on TuneBN. Please Disable your AD Blocker to continue browsing.